• শুক্রবার ২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    হোটেলে আটকে রেখে তরুণীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ

    অনলাইন ডেস্ক | ১৩ অক্টোবর ২০২০ | ১:৪৭ অপরাহ্ণ

    হোটেলে আটকে রেখে তরুণীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ

    চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বেড়ানোর কথা বলে প্রেমিকাকে আবাসিক হোটেলে নিয়ে দুই দিন আটকে রেখে পাঁচ বন্ধুসহ দলবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে প্রেমিকের বিরুদ্ধে। গাজীপুরের শ্রীপুরে দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক নারী পোশাক শ্রমিক।

    এ ছাড়া দেশের সাত জেলায় শিশু ও স্কুলছাত্রী, গৃহবধূ ও প্রতিবন্ধী নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ধর্ষণচেষ্টার একাধিক ঘটনা ঘটেছে।

    থানার পুলিশ, এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগীর পরিবার সূত্রে সংশ্লিষ্ট এলাকার কালের কণ্ঠ’র প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

    সীতাকুণ্ডে প্রেমিকাকে হোটেলে নিয়ে পাঁচ বন্ধুসহ দলবদ্ধ ধর্ষণে মামলা : চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বেড়ানোর কথা বলে প্রেমিকাকে আবাসিক হোটেলে নিয়ে দুই দিন ধরে পাঁচ বন্ধুসহ দলবদ্ধ ধর্ষণ করেছেন প্রেমিক। এ ঘটনায় অসুস্থ হয়ে পড়া ভুক্তভোগী নারী গতকাল সোমবার সকালে থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ হোটেল ম্যানেজার, প্রেমিকসহ সাতজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

    গ্রেপ্তার ছয়জন হলেন উপজেলার মধ্যম ভাটেরখীল গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে নয়ন (২২), একই গ্রামের মো. নুর নবীর ছেলে মোহাম্মদ আলীম হোসেন (২২), গুলিয়াখালী খালিদ মেম্বারের বাড়ির মোহাম্মদ জামাল উল্লাহ মোহাম্মদ রিফাত (১৯), দক্ষিণ ভাটেরখীল গ্রামের আবদুল মালেকের ছেলে মোহাম্মদ ইমন ইসলাম (২০), একই এলাকার নেছার আহমেদের ছেলে রনি (২০), জসিম উদ্দিনের ছেলে বারেক (২২) এবং জলসা হোটেলের মালিক দক্ষিণ ইদিলপুর গ্রামের আবুল কালামের ছেলে (ম্যানেজার) নুর উদ্দিন (৩৮)।

    পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সীতাকুণ্ডের মধ্যম ভাটেরখীল গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে নয়নের সঙ্গে এক মাস আগে একটি অনুষ্ঠানে পরিচয় হয় মিরসরাইয়ের স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হওয়া এই তরুণীর (১৮)। এরপর তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক হয়। গত শনিবার তরুণীকে নিয়ে গুলিয়াখালী সি-বিচে ঘুরতে যান নয়ন ও তাঁর বন্ধুরা। রাতে তাঁকে পৌর সদর ডিটি রোডে অবস্থিত আবুল কালামের মালিকানাধীন জলসা হোটেলে নিয়ে যান। এরপর তাঁকে আটকে রেখে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন নয়ন ও তাঁর পাঁচ বন্ধু।

    শ্রীপুরে দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার পোশাক শ্রমিক, মামলা দায়ের : গাজীপুরের শ্রীপুরে দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক নারী পোশাক শ্রমিক (২৫)। শোবার ঘরের সঙ্গে যুক্ত বাথরুমের টিনের চালার একটি অংশ সরিয়ে ভেতরে ঢুকে দুজন তাঁর মুখ বেঁধে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। গত রবিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। গতকাল সোমবার মামলা করেছেন ভুক্তভোগী তরুণী।

    অভিযুক্ত দুজন একই বাসায় ভাড়া থাকেন। তাঁরা হলেন ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার মল্লিকবাড়ী এলাকার তকুমুদ্দিনের ছেলে আশরাফুল আলম (২২) ও দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার গোয়ালডিহি গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম (৩৩)।

    ঘটনার পর তরুণীর চিৎকারে বাড়ির মালিকসহ প্রতিবেশীরা গিয়ে ঘটনা জানতে পারে। আশরাফুলকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেয় তারা। জাহাঙ্গীর পালিয়ে গেছেন।

    শরীয়তপুরে স্কুলছাত্রী ধর্ষণে মামলা, গ্রেপ্তার ১ : শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলায় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। ভুক্তভোগী মেয়েটির মায়ের করা এ মামলায় পুলিশ রজব আলী সরকার নামের একজনকে গ্রপ্তার করেছে। তিনি খুনিকান্দি গ্রামের আবুল কাশেম সরকারের ছেলে।

    রংপুরে দুই শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা, গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার : রংপুর নগরের পশ্চিম নীলকণ্ঠ এলাকায় পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে একই এলাকার নছর মুন্সীর ছেলে সহিদার রহমানকে (৫০) পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে জনতা। গত রবিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

    জেলার বদরগঞ্জের বালুয়াভাটা এলাকায় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় রায়হান হক (২৫) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

    আটঘরিয়ায় কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে কিশোর গ্রেপ্তার : পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার দেবোত্তরে নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৬) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রের (১৫) বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে করা মামলায় অভিযুক্ত কিশোরকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। গত রবিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

    কেন্দুয়ায় প্রতিবন্ধী নারী ধর্ষণ মামলার আসামি গ্রেপ্তার : নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় এক বাক্প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় আসামি মজনু মিয়াকে (৪০) গত রবিবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত শুক্রবার দুপুরে মরিচপুর গ্রামের ওই নারীকে তিনি ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ। ভুক্তভোগী নারীর মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন।

    জয়পুরহাটে গোপনে গোসলের দৃশ্য ধারণ করে গৃহবধূকে অনৈতিক প্রস্তাব, যুবক গ্রেপ্তার : জয়পুরহাট পৌর শহরের সবুজনগর এলাকায় এক গৃহবধূর গোসলের দৃশ্য ধারণ করে তা ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে অনৈতিক প্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এক যুবকের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় গত রবিবার পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা করার পর রাতেই অভিযুক্ত সোহেল রানাকে শহরের আমতলী এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

    শেরপুরে শ্যালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে দুলাভাই গ্রেপ্তার : শেরপুরে শ্যালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে দুলাভাইকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার মুন্না মিয়া খান (২৮) সদর উপজেলার ভাতশালা ইউনিয়নের শাপমারি এলাকার আব্দুস সামাদ খান তোতা মিয়ার ছেলে। গতকাল সোমবার তাঁকে জেলা কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

    নোয়াখালীতে গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে অটোরিকশাচালক গ্রেপ্তার : নোয়াখালীর সেনবাগে এক গৃহবধূকে (২৫) ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে সিএনজিচালিত অটোরিকশার এক চালককে আটক করেছে পুলিশ। আটক আবু তৌহিদ তুহিন (৩৮) উপজেলার ৩ নম্বর ডমুরিয়া ইউনিয়নের মইশাই গ্রামের আবু স্বপন ভাণ্ডারীর ছেলে। গতকাল সোমবার আসামিকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

    লক্ষ্মীপুরে শিশু ধর্ষণ, দলবদ্ধ ধর্ষণ ও ধর্ষণচেষ্টায় গ্রেপ্তার ৩ : লক্ষ্মীপুরে পৃথক তিন ধর্ষণের ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার দুপুরে সদর উপজেলার পশ্চিম লক্ষ্মীপুর ও আগের দিন রবিবার রাতে রায়পুরের টিঅ্যান্ডটি সড়ক ও চট্টগ্রামের বাকুলিয়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

    সদর থানার ওসি এ কে এম আজিজুর রহমান মিয়া জানান, গতকাল দুপুরে সদর উপজেলার পশ্চিম লক্ষ্মীপুর গ্রামে চকোলেটের প্রলোভন দেখিয়ে আট বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় স্থানীয়দের সহযোগিতায় অভিযুক্ত বাতেন হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়। বাতেন একই গ্রামের আবদুল হাইয়ের ছেলে।

    রামগতি থানার ওসি মোহাম্মদ সোলাইমান জানান, উপজেলার চরকলাকোপা গ্রামে ৩ অক্টোবর রাতে এক নারীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের পর হাত-পা ও চোখ-মুখ বেঁধে রেখে যাওয়ায় দায়ের মামলার প্রধান আসামি মো. করিমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রবিবার রাতে চট্টগ্রামের বাকুলিয়া এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গতকাল সোমবার করিমকে আদালতে সোপর্দ করে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

    বাগেরহাটে এনজিওকর্মীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ : এক আসামির স্বীকারোক্তি
    বাগেরহাটের ফকিরহাটে বারান্দার চালের টিন কেটে ঘরে ঢুকে এক এনজিওকর্মীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের মামলায় গ্রেপ্তার মামুন শেখ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। গতকাল সোমবার বিকেলে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট খোকন হোসেন তাঁর জবানবন্দি রেকর্ড করেন। জবানবন্দি রেকর্ড শেষে বিচারক আসামিকে বাগেরহাট জেলা কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

    মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ফকিরহাট থানার ওসি (তদন্ত) বাবুল আখতার জানান, মামুন শেখ (৩০) জবানবন্দিতে বলেছেন, ফিরোজ নিকারী (২৯) আগে থেকে ওই বাড়ির সামনে অপেক্ষা করছিলেন। পরে তিনি, রাজু (২৫) ও মুসা (২৯) ভ্যানে করে সেখানে যান। তাঁরা ঘরে ঢুকে মোবাইল ফোনে আপত্তিকর দৃশ্য ধারণ করে তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ওই এনজিওকর্মীর কাছে ৫০ হাজার টাকা দাবি করেন। এরপর চারজন মিলে ধর্ষণ করে সেই দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ করেন।

    Facebook Comments

    বাংলাদেশ সময়: ১:৪৭ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর ২০২০

    shikkhasangbad24.com |

    advertisement

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    advertisement
    শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    advertisement

    সম্পাদক ও প্রকাশক : জাকির হোসেন রিয়াজ

    সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: বাড়ি# ১, রোড# ৫, সেক্টর# ৬, উত্তরা, ঢাকা
    01646741484 | hossainreaz694@gmail.com

    ©- 2021 shikkhasangbad24.com all right reserved