• মঙ্গলবার ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    গাইবান্ধায় নাশকতাসহ ১৮ মামলার আসামি বই উপহার পেলেন স্বাক্ষরতা দিবসে

    অনলাইন ডেস্ক | ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১১:১৪ অপরাহ্ণ

    গাইবান্ধায় নাশকতাসহ ১৮ মামলার আসামি বই উপহার পেলেন স্বাক্ষরতা দিবসে

    গাইবান্ধার আলোচিত সাদুল্লাপুর উপজেলা শিবিরের সাবেক সভাপতি ও নাশকতা- চেষ্টাসহ ১৮টি মামলার আসামি মাইদুল ইসলামকে আর্ন্তজাতিক স্বাক্ষরতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে সাদুল্লাপুর উপজেলা পরিষদ হল রুমে এই পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান হয়।

    ‘সাদুল্লাপুরের উন্নয়নে করণীয়’ শীর্ষক রচনা প্রতিযোগিতায় ৫ ক্যাটাগরীতে ১০ জন করে ৫০ জনকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। এরমধ্যে উন্মুক্ত ক্যাটাগরীতে ৯ম বিজয়ী শিবির নেতা বহু মামলার আসামি মাইদুল ইসলামের হাতে পুরস্কারের বই তুলে দেন অনুষ্ঠানের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নবীনেওয়াজ।

    এসময় অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সাদুল্লাপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়লীগের সাধারণ সম্পাদক সাহারিয়া খান বিপ্লব  সহ আরো বিভিন্ন সংগঠেনর নেতা কমী  উপস্থিত ছিলেন।

    পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সাদুল্লাপুর উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নের মরুয়াদহ গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে মাইদুল ইসলাম। এলাকায় শিবিরের দুর্ধষ ক্যাডার হিসেবেও পরিচিত মাইদুল। গত ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে অগ্নিসংযোগ, বিভিন্ন সময় আন্দোলন-সংগ্রামের নামে সন্ত্রাস-নাশকতা, মাওলানা দেলওয়ার হোসাইন সাঈদির ফাঁসির রায়কে ঘিরে হরতাল-অবরোধের সৃষ্টি, যানবাহনে আগুন দেয়া ও শেখ হাসিনার জন্য সড়কে কবর খোঁড়াসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী ও নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডে সক্রিয় নেতৃত্ব দেয় মাইদুল। এ ছাড়াও ২০১৩ সালে জামায়াত-শিবিরের সশস্ত্র হামলার শিকার সাহারিয়া খান বিপ্লব বাদি হয়ে হত্যা চেষ্টার একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার এজাহার নামীয় ও চার্জশীটভুক্ত আসামি কথিত মাইদুল ইসলাম।

    এদিকে মঙ্গলবারের ওই অনুষ্ঠান শেষে পুরস্কার গ্রহণের সেইসব ছবি অনেকেই নিজের ফেসবুকে ওয়ালে পোষ্ট করেন। সেখানেই শিবির ক্যাডার মাইদুলের ছবি দেখা গেছে। সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরালের বিষয়টি বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নজরে আসে স্থানীয় সাংবাদিকদের। ইতোমধ্যে ঘটনাটি জানাজানি হলে বিতর্কসহ নানা সমালোচনা চলছে স্থানীয়দের মধ্যে।

    এ বিষয়ে সাদুল্লাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার  মো. নবীনেওয়াজ  বলেন, ‘উন্মুক্ত গ্রুপে রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হিসেবে মাইদুলের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। তবে মাইদুল শিবিরের নেতা কিংবা নাশকতা মামলার আসামি কিনা সেটি আমার জানা ছিলো না।

    এ বিষয়ে সাদুল্লাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক সাহারিয়া খান বিপ্লব বলেন, অনুষ্ঠান চলাকালে বিজয়ীদের পক্ষে মাইদুল ইসলাম নিজের পরিচয় দিয়ে মাস্ক পড়ে বক্তব্য শুরু করে। তাৎক্ষণিক বিষয়টি নিয়ে বিব্রতবোধ করলেও অনুষ্ঠানে বিশৃঙ্খলার আশঙ্কায় তাকে কিছু বলা সম্ভব হয়নি। তবে বিষয়টি আগে জানলে এই পরিস্থিতি হতোনা।

    উপজেলা প্রশাসনের অনুষ্ঠানে আলোচিত শিবির ক্যাড়ারের অংশ গ্রহণের ছবি দেখে দুঃখ প্রকাশ করেছেন গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্লাপুর-পলাশবাড়ী) আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট উম্মে কুলসুম স্মৃতি। তিনি বলেন, এমন একজন চিহ্নিত অপরাধীর অনুষ্ঠানে উপস্থিতি কাম্য নয়। তাকে কারাই বা সিলেকশন করেছে তা খতিয়ে দেখতে ইউএনওকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে কারো সখ্যতার প্রমাণ পেলে অবশ্যই তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
    অপরদিকে শিবির নেতা মাইদুল ইসলামের বিরুদ্ধে নাশকতাসহ ১৮টি মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে সাদুল্লাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাসুদ রানা বলেন,  তার বিরুদ্ধে আদালতে অধিকাংশ মামলার চার্জশীট দেয়া হয়েছে। বর্তমানে মামলাগুলো আদালতে বিচারাধীন।

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ১১:১৪ অপরাহ্ণ | বুধবার, ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

    shikkhasangbad24.com |

    advertisement

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    advertisement
    শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১ 
    advertisement

    সম্পাদক ও প্রকাশক : জাকির হোসেন রিয়াজ

    সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: বাড়ি# ১, রোড# ৫, সেক্টর# ৬, উত্তরা, ঢাকা

    ©- 2021 shikkhasangbad24.com all right reserved