• মঙ্গলবার ২৭শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১২ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    খাটিয়া দেয়নি এলাকাবাসী, জানাযা অ্যাম্বুলেন্সে

    অনলাইন ডেস্ক | ০৫ জুলাই ২০২০ | ৫:৩৮ অপরাহ্ণ

    খাটিয়া দেয়নি এলাকাবাসী, জানাযা অ্যাম্বুলেন্সে

    ঝিনাইদহে খাটিয়া না দেওয়ায় করোনায় মৃত ব্যক্তির জানাযা পড়ানো হলো অ্যাম্বুলেন্সের মধ্যেই। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে ঝিনাইদহের শৈলকূপা উপজেলার পৌরসভার খুদের মোড় এলাকায়।

    জানা গেছে, পৌর এলাকার মধ্যপাড়া গ্রামের রফি উদ্দিন মোল্লার গোলাম সরোয়ার মোর্শেদ (৫২) চট্টগ্রামে চাকুরি করতেন। সেখানে করোনা উপসর্গ দেখা দিলে ২৯ জুন শৈলকুপার নিজ বাড়িতে চলে আসেন। এরপর নমুনা পরীক্ষায় পজিটিভ আসে তার। চিকিৎসার জন্য ১ জুলাই কুষ্টিয়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে পরদিন তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ভর্তি হন। সেখানেই চিকিৎসারত অবস্থায় ৪ জুলাই (শনিবার) দুপুর ২টায় তিনি মৃতবরণ করেন।
    প্রশাসনের নির্দেশনায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মো: আব্দুল হামিদ খানের তত্ববাবধানে শৈলকুপা উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামের সহযোগিতায় মৃত গোলাম সরোয়ার মোর্শেদের জানাযা, দাফন কাফনের ব্যবস্থা করা হয়।

    ইসলামিক ফাউন্ডেশনের শৈলকুপা উপজেলার ফিল্ড সুপারভাইজার মো: আব্দুর রাজ্জাকের নেতৃত্বে দাফন গঠিত কমিটির সদস্যরা রাত সাড়ে ১২টার দিকে জানাযা শেষে স্থানীয় গোরস্থানে দাফন সম্পন্ন করেন।

    ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মো: আব্দুল হামিদ খান জানান, করোনা আক্রান্ত মৃত ব্যক্তির জানাযা করার জন্য স্থানীয় জনগণ খাটিয়া দেয়নি এবং এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে কেউ জানাযায় অংশগ্রহণও করেননি। তাই অ্যাম্বুলেন্সের মধ্যেই মৃত ব্যক্তির জানাযা পড়ানো হয়েছে। এছাড়া তিনি করোনা সম্পর্কে সকলকে আরও বেশি বেশি সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান।

    Facebook Comments Box

    বাংলাদেশ সময়: ৫:৩৮ অপরাহ্ণ | রবিবার, ০৫ জুলাই ২০২০

    shikkhasangbad24.com |

    advertisement

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    advertisement
    শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১ 
    advertisement

    সম্পাদক ও প্রকাশক : জাকির হোসেন রিয়াজ

    সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: বাড়ি# ১, রোড# ৫, সেক্টর# ৬, উত্তরা, ঢাকা

    ©- 2021 shikkhasangbad24.com all right reserved