• বৃহস্পতিবার ২২শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৯ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    ইতিহাসকে সত্যের পথে নিতে হলে এখন সময় এসেছে – চীফ হুইপ লিটন চৌধুরী

    অনলাইন ডেস্ক | ০৩ অক্টোবর ২০২০ | ১২:৪০ পূর্বাহ্ণ

    ইতিহাসকে সত্যের পথে নিতে হলে এখন সময় এসেছে – চীফ হুইপ লিটন চৌধুরী

    জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ নূর-ই আলম চৌধুরী বলেছেন-বঙ্গবন্ধুকে খুনের সাথে জিয়াউর রহমান সরাসরি জড়িত ছিল। তার স্ত্রী হিসেবে খালেদা জিয়া কিছু জানবে না এটা বাংলার মানুষ বিশ্বাস করবে না। ইতিহাসকে সত্যের পথে নিতে হলে এখন সময় এসেছে খালেদা জিয়ার মুখ খোলার।

    শেখ হাসিনা আপনাকে অনেক দয়া করেছে, অনেক সহযোগিতা করেছে। আপনারও বাংলাদেশের মানুষের জন্য কিছু করা উচিত। আপনার স্বামীসহ বঙ্গবন্ধুর খুনের সাথে সরাসরি কারা জড়িত ছিল আপনি সেই ইতিহাস জানেন। আজকে আপনি জনগনের কাছে সেই ইতিহাস প্রকাশ করে কিছুটা হলেও পাপের প্রায়শ্চিত্ব করবেন বলে আমি আশা করি। দুপুরে  শিবচর উপজেলার মাদবরচর ইউনিয়নে শেখ জামাল সেতু উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চীফ হুইপ এসব কথা বলেন।

    এরআগে চীফ হুইপ চলতি বছর এসএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পাওয়া অতি দরিদ্র মেধাবী মাদবরচরের সুমাইয়া আক্তার ফারহানার বাড়ি যান। নিজ অর্থায়নে নবনির্মিত সুমাইয়া ফারহানার বাড়ি পরিদর্শন করেন ও লেখাপড়ার খোজ খবর নেন । এরআগে চীফ হুইপ কুতুবপুর ইউনিয়নে ফজলুল করিম বেপারী সেতু উদ্বোধন করেন। পরে পৌরসভার নবনির্মিত জামে মসজিদ উদ্বোধনসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে অংশ গ্রহন করেন।

    এসময় কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মুনির চৌধুরী, এলজিইডির সুপারেন্ডেড ইঞ্জিনিয়ার মুজিবর সিকদার, এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী বাবুল আখতার, পৌরসভার মেয়র মো: আওলাদ হোসেন খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আসাদুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আ: লতিফ মোল্লা, সাধারন সম্পাদক ডা: মো: সেলিম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

    এসময় চীফ হুইপ আরো বলেন, জিয়াউর রহমান যিনি সরাসরি বঙ্গবন্ধ খুনের সাথে জড়িত তিনি ক্ষমতায় থাকাকালীন জননেত্রী শেখ হাসিনা কিভাবে বাংলার মাটিতে এসেছিলেন তা সকলেই জানেন। এটা একটি সাহসের ব্যাপার ছিল। এটি তার জন্য ঝুকিরও ব্যাপার ছিল। তারপরও যেহেতু তিনি বঙ্গবন্ধুর মেয়ে তাই সাহস করে ঝুকি নিয়েই দেশে ফিরে এসেছিল। জিয়াউর রহমান মারা যাওয়ার পরে খালেদা জিয়া তিন তিন বার প্রধানমন্ত্রী থাকার পরেও তার ছেলে তারেক জিয়া আজ লন্ডনে পালিয়ে রয়েছে। নিজেদের দলের এত বড় দায়িত্ব নিয়েছে তবুও তিনি কিন্তু সাহস করে বাংলার মাটিতে আসতে পারছেন না। নেতা হতে গেলে সাহস লাগে। বঙ্গবন্ধু সাহস করেছিলেন তাই বহুবার জেল খেটেছেন। বাংলাদেশ স্বাধীন করেছেন। শেখ হাসিনাকে আঠার বারের মত হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল। এমন সাহস যদি না থাকে তাহলে কিভাবে কেউ মানুষের নের্তৃত্ব দেবে। যে নেতা (তারেক জিয়া)তার মায়ের বিপদের সময় আসতে পারে না, মায়ের অসুখের সময় আসতে পারে না, ভাইয়ের মৃত্যুর পর কবর দিতে আসতে পারেনা তার কাছ থেকে বাংলাদেশের মানুষ কি আশা করতে পারে ? কার জন্য তিনি দেশে আসবেন আপনাদের জন্য ? না। তিনিতো তার মায়ের জন্যই সবার আগে আসতেন। আজকে তার মা-ইতো হতাশ। তিনি মানুষের নের্তৃত্ব কিভাবে দেবেন।

    Facebook Comments

    বাংলাদেশ সময়: ১২:৪০ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ০৩ অক্টোবর ২০২০

    shikkhasangbad24.com |

    advertisement

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    advertisement
    শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    advertisement

    সম্পাদক ও প্রকাশক : জাকির হোসেন রিয়াজ

    সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: বাড়ি# ১, রোড# ৫, সেক্টর# ৬, উত্তরা, ঢাকা
    01646741484 | hossainreaz694@gmail.com

    ©- 2021 shikkhasangbad24.com all right reserved